ওয়ার্ডপ্রেস.কম (WordPress.com) – টিউটোরিয়াল – ৭ – ফেসবুক, টুইটার, ইয়াহু ইত্যাদিতে সয়ংক্রিয় পোষ্ট শেয়ার করা (Publicize) এবং কিছু ট্রিক্স (র‍্যানডম পোষ্ট বাটন, ফলো বাটন, পোষ্ট সূচী)

আজকের পোষ্টে দেখাব কিভাবে ফেসবুক, টুইটার, ইয়াহু ইত্যাদিতে নতুন পোষ্ট সয়ংক্রিয় শেয়ার করা যায় এবং ব্লগে র‍্যানডম পোষ্ট বাটন, ফলো বাটন ও পোষ্ট সূচী তৈরি করা যায়।
প্রথমে শেয়ার করা পদ্ধতি দিয়ে শুরু করি। নতুন পোষ্ট ফেসবুক, টুইটার, ইয়াহু ইত্যাদিতে সয়ংক্রিয় শেয়ার করাকে ওয়ার্ডপ্রেস.কম এ বলা হয় Publicize. যার শাব্দিক অর্থ প্রচার করা। আপনার নতুন পোষ্ট সয়ংক্রিয় ফেসবুক, টুইটার, ইয়াহু ইত্যাদির মাধ্যমে প্রচার করা যায় বলে একে Publicize বলা হয়েছে।
Publicize করার জন্য প্রথমে আপনাকে ড্যাসবোর্ড যেতে হবে। তারপর বামে Dashboard অংশ থেকে My Blogs এ ক্লিক করতে হবে।

তাহলে যে পেজটি আসবে সেটি দেখতে নিচের মত।

এখানে আপনার ব্লগের নাম দেখা যাবে। এখানে দেখবেন কিছু চেক বক্স আছে। চেক বক্স গুলোর নাম যথাক্রমে – Yahoo! Updates, Twitter, Facebook এবং Messenger Connect.
এখন আপনি যেখানে যেখানে পাবলিসাইজ করতে চান সেখানে টিক চিহ্ন দিন। টিক চিহ্ন দেয়ার পর আপনাকে ঐ একাউন্টে লগইন পেজে নিয়ে যাওয়া হবে। লগইন করা হলে বা আগ থেকে লগইন করা থাকলে একটি পেজ আসবে, সেখান থেকে Allow বাটনে ক্লিক করতে হবে। ধরুন আপনি Facebook চেক বক্সে টিক দিয়েছেন তাহলে আপনার সামনে ফেসবুকের লগইন উইন্ডো আসবে, আর যদি লগইন করাই থাকে তাহলে আপনার পারমিশন চাবে। তখন Allow বাটনে ক্লিক করলেই হবে। একই ভাবে সবগুলো একাউন্ট আপনার ব্লগে যুক্ত করতে পারবেন। একাউন্ট যোগ করার পর নতুন কোন পোষ্ট করলে তা সয়ংক্রিয় আপনার যুক্ত করা একাউন্ট গুলোতে শেয়ার হয়ে যাবে।

এবার ওয়ার্ডপ্রেস.কম ব্লগের কিছু ট্রিক্স দেখাব। প্রথমে দেখা যাক কিভাবে ব্লগে র‍্যানডম পোষ্ট বাটন যুক্ত করা যায়।
র‍্যানডম পোষ্ট বাটন
আমার এ ব্লগের ডানে খুজলে দেখবেন Random Post নামে একটি বাটন আছে। এতে ক্লিক করলে এ ব্লগের র‍্যানডম অর্থাৎ উল্টা-পাল্টা যে কোন একটি পোষ্ট চালু হবে। এরকম বাটন তৈরির জন্য আপনাকে উইজেট পেজে যেতে হবে। এ জন্য প্রথমে ড্যাসবোর্ডে গিয়ে বামে Appearance অংশ থেকে Widgets অপশনে ক্লিক করতে হবে।

এবার উইজেট পেজে Available Widgets অংশ থেকে Text উইজেট ড্র্যাগ করে Primary Widget Area অংশে ড্রপ করুন। তার পর সেখানে Title বক্সের নিচের বক্সে নিচের কোড লিখুন।

<span style="font-size:130%;"><a class="blank" href="https://iwwintricks.wordpress.com/?random" title="এলোমেলো ভাবে যে কোন একটি পোস্ট দেখাতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন" target="_blank">Random Post</a></span>

উপরের কোডে iwwintricks.wordpress.com এর যায়গায় আপনার ব্লগের ঠিকানা লিখুন।
তাহলে উইজেট উইন্ডোটি দেখতে নিচের মত হবেঃ

এবার Save বাটনে ক্লিক করুন। তাহলে দেখবেন আপনার ব্লগে Random Post নামে একটি বাটন যুক্ত হয়েছে। এতে ক্লি করলে আপনার ব্লগের যে কোন একটি পোষ্ট চালু হবে।

ফলো বাটন
আপনি চাইলে আপনার ব্লগে ফলো বাটন দিতে পারেন। ফলো বাটনে সাধারনত নিজের ফেসবুক একাউন্ট এবং টুইটার একাউন্টের লিঙ্ক দেয়া থাকে। ফলো বাটন তৈরির জন্য আপনাকে উইজেট পেজে গিয়ে Available Widgets থেকে আরো একটি Text উইজেট ড্র্যাগ করে Primary Widget Area তে ড্রাপ করতে হবে। তারপর Title বক্সের নিচের বক্সে নিচের মত কোড লিখতে হবে।

<a href="http://www.facebook.com/username" target="_blank"><img src="http://cache.addthis.com/icons/v1/thumbs/32x32/facebook.png" border="0" alt="Facebook" /></a>

<a href="http://twitter.com/username" target="_blank"><img src="http://cache.addthis.com/icons/v1/thumbs/32x32/twitter.png" border="0" alt="Twitter" /></a>

উপরের কোডে http://www.facebook.com/username এর যায়গায় আপনার ফেসবুকের প্রোফাইলের ঠিকানা দিতে হবে এবং twitter.com/username এর যায়গায় আপনার টুইটার পেজের ঠিকানা দিতে হবে। আপনি চাইলে উইজেটের Title এ Follow Me জাতীয় কিছু লিখতে পারেন। সব শেষে Save বাটনে ক্লিক করুন।

পোষ্ট সূচী
আমার ব্লগে একটি পেজ আছে। যার নাম পোষ্ট সূচী। এটি এখানে ক্লিক করে দেখে আসতে পারেন। এ পেজে আমার ব্লগের সব পোষ্টের টাইটেল এবং লিঙ্ক আছে। মনে হতে পারে এটি Manually তৈরি। কিন্তু না এটি একটি সয়ংক্রিয় পদ্ধতি। মাত্র একটা শব্দ দিয়ে এ কাজটি করা হয়েছে। এ ধরনের পোষ্ট সূচী তৈরির জন্য প্রথমে একটি নতুন পেজ তৈরি করুন। নতুন পেজ তৈরির জন্য ড্যাসবোর্ডে গিয়ে বামে Pages অংশ থেকে Pages এ ক্লিক করুন, তারপর Add New বাটনে ক্লিক করুন (নতুন পেজ তৈরি করতে সমস্যা হলে এখানে ক্লিক করে নতুন পেজ তৈরি করা দেখে আসতে পারেন)। তারপর নতুন পেজে শুধু নিচের কোডটি লিখে এবং ইচ্ছে মত টাইটেল দিয়ে পাবলিশ করুন।

[ archives ]

উপরের কোডে archives এর দুইপাশের চিহ্ন দুটির মাঝখানের Space মুছে দিন। তা না হলে কোড কাজ করবে না। তারপর নতুন পেজটি চালু করে দেখুন সব ঠিক আছে কিনা। লেখা যদি বেশী ছোট দেখায় তাহলে পেজটি এডিট করে উপরের কোডটির বদলে নিচের কোডটি লিখুন। এডিট করার জন্য আপনার পেজটিতে গিয়ে পেজটির উপরে ওয়ার্ডপ্রেস.কমের যে বারটি আছে সেখানে শেষের দিকের Edit বাটনে ক্লিক করুন। তারপর আগের কোডটি মুছে নিজের কোডটি লিখে Update করুন।

<span style=”font-size:130%;”>[ archives ]</span>

উপরের কোডে archives এর দুইপাশের চিহ্ন দুটির মাঝখানের Space মুছে দিন। তা না হলে কোড কাজ করবে না।
পোষ্ট সূচী সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে এখানে দেখতে পারেন।
আজকে এ পর্যন্তই। কোথাও কোন সমস্যা হলে কমেন্ট করবেন।
ধন্যবাদ।

ওয়ার্ডপ্রেস.কম টিউটোরিয়ালটি মোট ৯টি পোষ্ট এর সমন্বয়ে তৈরি করা হয়েছে। আপনাদের সুবিধার্থে টিউটোরিয়ালের সব পেজের লিঙ্ক নিচে দেয়া হলঃ

ইয়াহুতে একটি একাউন্ট দিয়ে দুইটি ইমেইল আইডি ব্যবহার করা

ইমেইল ক্লায়েন্ট গুলোর মধ্য ইয়াহু খুবই জনপ্রিয়। আমরা অনেকেই মেইলের জন্য ইয়াহু ব্যবহার করি। এর একটি দারুন সুবিধা আছে। যা আমরা বেশীর ভাগ ব্যবহারকারী জানি না। তা হল এর একটি একাউন্ট দিয়ে দুটি আইডি ব্যবহার করে যায়। সহজ কয়েকটি ধাপের মাধ্যমে দুটি আইডি তৈরি করা যায়। নিচে অতিরিক্ত ইমেইল আইডি তৈরি করার ধাপ গুলো দেখানো হল।

১. প্রথমে mail.yahoo.com এ গিয়ে ডানে Options থেকে More Options… এ ক্লিক করুন।

২. এবার বামে থেকে Acconts এ ক্লিক করুন।

৩. তারপর ডানে থেকে Create extra email address এ ক্লিক করুন।

৪. এবার নতুন আইডির জন্য একটি নাম দিন এবং Check Availability বাটনে ক্লিক করুন।

৫. আপনার দেয়া নামটি আগে ব্যবহার না হলে Choose নামে একটি বাটন আসবে, এতে ক্লিক করুন।

৬. এবার ক্যাপচাতে দেয়া কোডটি খালি বক্সে টাইপ করে OK বাটনে ক্লিক করুন।

সব ঠিক মত করলে আপনাকে পরের পেজে Congratulation জানাবে। আশা করি পোষ্টটি কাজে লাগবে।
ধন্যবাদ।

ওয়েব মাস্টার টুল (Webmaster Tool) দিয়ে ওয়ার্ডপ্রেস.কম (WordPress.com) এ তৈরি করা ব্লগ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজ (SEO) করা

সেলফ হোস্টেড অর্থাৎ নিজস্ব ওয়েব সাইট থাকলে বিভিন্ন প্লাগইন ব্যবহার করে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজ করা যায়। কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেস.কম এ তৈরি করা ব্লগে কোন প্লাগইন যোগ করার সুবিধা না থাকায় নিজ থেকে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) করা যায় না। তবে SEO করার প্রধান শর্ত হল ব্লগ বা সাইটের মান ভাল হতে হবে। নিয়মিত আপডেট রাখার চেষ্টা করতে হবে। কপি-পেস্ট অর্থাৎ কারও জিনিস হুবহু নকল করা যাবে না। সার্চ ইঞ্জিনের কাছে সব সাইটের কপি আছে, তাই আপনি কপি-পেস্ট করে সবাইকে বোকা বানাতে পারলেও সার্চ ইঞ্জিনকে বোকা বানাতে পারবেন না। এগুলো ছাড়াও ওয়েব মাস্টার টুল দিয়ে ওয়ার্ডপ্রেস.কম এ তৈরি ব্লগ SEO করা যায়। প্রধানত গুগল, ইয়াহু এবং বিং সার্চ ইঞ্জিন ওয়েব মাস্টার টুল ব্যবহারের সুযোগ দিচ্ছে। ওয়েব মাস্টার টুল ব্যবহার করলে আপনার ব্লগে নতুন পোষ্ট করলে তা সাথে সাথে সার্চ ইঞ্জিনের কাছে চলে যাবে। এছাড়াও আপনার ব্লগ সম্পর্কে সব ধরনের তথ্য সার্চ ইঞ্জিনের কাছে চলে যাবে। এতে আপনার সাইটটি ভাল না খারাপ তা সার্চ ইঞ্জিন কাছ থেকে পর্যবেক্ষন করবে। আপনার সাইট যদি মানসম্মত হয় তাহলে অবশ্যই আপনার ব্লগ SEO হবে। ওয়েব মাস্টার টুল ব্যবহারের জন্য প্রথমে আপনার ব্লগকে সার্চ ইঞ্জিনের কাছে পরিচিত বা Verify করে দিতে হবে। নিচে গুগল, ইয়াহু এবং বিং এর কাছে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস.কম এ তৈরি করা ব্লগ সাইট পরিচিত করার পদ্ধতি দেয়া হল।

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস.কম এ তৈরি ব্লগ ওয়েব মাস্টার টুল দিয়ে SEO করতে নিচের ধাপ গুলো অনুসরণ করুন।

গুগল ওয়েব মাস্টার টুলস (Google Webmaster Tools)

১. প্রথমে https://www.google.com/webmasters/tools/ এ গিয়ে আপনার গুগল একাউন্ট দিয়ে লগইন করুন। যদি আপনার গুগল একাউন্ট না থাকে তাহলে একটি একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

২. এখান আপনার ব্লগের ঠিকানা দিয়ে Add Site এ ক্লিক করুন।

৩. এখন আপনার সাইট গুগলে কাছে পরিচিত করার জন্য বিভিন্ন পদ্ধতি দেয়া হবে। সেখান থেকে Mete Tag যেটিতে লেখা আছে সেটি সিলেক্ট করুন।

৪. এখন আপনাকে নিচের মত একটি কোড দেয়া হবে। তা সম্পূর্ন সিলেক্ট করে Ctrl + C চেপে কপি করুন।

<meta name='google-site-verification' content='dBw5CvburAxi537Rp9qi5uG2174Vb6JwHwIRwPSLIK8'>

৫. এখন এ পেজটি রেখে আরেকটি ট্যাব চালু করে আপনার ব্লগের ড্যাশবোর্ড চালু করুন।

৬. ড্যাশবোর্ডের বাম দিক থেকে Tools এ ক্লিক করুন। তারপর যে পেজটি আসবে সেখানে নিচের দিকে দেখবেন Google Webmaster Tools লেখা একটি বক্স আছে, সে বক্সে ক্লিক করে Ctrl + V চেপে কপি করা কোডটি পেস্ট করুন।

৭. তারপর Save Changes এ ক্লিক করুন।

৮. এবার আবার কোড দেয়ার পেজটিতে ফিরে গিয়ে Verify এ ক্লিক করুন।

ইয়াহু সাইট এক্সপ্লোরার (Yahoo Site Explorer)

১. প্রথমে https://siteexplorer.search.yahoo.com/ এ গিয়ে আপনার ইয়াহু একাউন্ট দিয়ে লগইন করুন। যদি আপনার ইয়াহু একাউন্ট না থাকে তাহলে একটি একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

২. এখান আপনার ব্লগের ঠিকানা দিয়ে My Site এ ক্লিক করুন।

৩. এখন আপনার সাইট ইয়াহুর কাছে পরিচিত করার জন্য বিভিন্ন পদ্ধতি দেয়া হবে। সেখান থেকে META Tag যেটিতে লেখা আছে সেটি সিলেক্ট করুন।

৪. এখন আপনাকে নিচের মত একটি কোড দেয়া হবে। তা সম্পূর্ন সিলেক্ট করে Ctrl + C চেপে কপি করুন।

<meta name='y_key' content='3236dee82aabe064'>

৫. এখন এ পেজটি রেখে আরেকটি ট্যাব চালু করে আপনার ব্লগের ড্যাশবোর্ড চালু করুন।

৬. ড্যাসবোর্ডের বাম দিক থেকে Tools এ ক্লিক করুন। তারপর যে পেজটি আসবে সেখানে নিচের দিকে দেখবেন Yahoo! Site Explorer লেখা একটি বক্স আছে, সে বক্সে ক্লিক করে Ctrl + V চেপে কপি করা কোডটি পেস্ট করুন।

৭. তারপর Save Changes এ ক্লিক করুন।

৮. এবার আবার কোড দেয়ার পেজটিতে ফিরে গিয়ে Ready to Authenticate এ ক্লিক করুন।

Note: It may take up to 24 hours for your site to be authenticated.

বিঃদ্রঃ ইয়াহুতে অথেনটিকেট হতে সর্বোচ্চ ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।

বিং ওয়েব মাস্টার সেন্টার (Bing Webmaster Center)

১. প্রথমে http://www.bing.com/webmaster এ গিয়ে আপনার লাইভ (Live!) একাউন্ট দিয়ে লগইন করুন। যদি আপনার লাইভ একাউন্ট না থাকে তাহলে একটি একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

২. এখন Add a Site এ ক্লিক করুন।

৩. এখান আপনার ব্লগের ঠিকানা দিয়ে Submit এ ক্লিক করুন।

৪. এখন আপনাকে কিছু কোড দেয়া হবে। সেখান থেকে Mate Tag কোডটি খুজে বের করুন। এটি দেখাতে নিচের মত। এবার কোডটি সম্পূর্ন সিলেক্ট করে Ctrl + C চেপে কপি করুন।

<meta name='msvalidate.01' content='12C1203B5086AECE94EB3A3D9830B2E'>

৫. এখন এ পেজটি রেখে আরেকটি ট্যাব চালু করে আপনার ব্লগের ড্যাশবোর্ড চালু করুন।

৬. ড্যাশবোর্ডের বাম দিক থেকে Tools এ ক্লিক করুন। তারপর যে পেজটি আসবে সেখানে নিচের দিকে দেখবেন Bing Webmaster Center লেখা একটি বক্স আছে, সে বক্সে ক্লিক করে Ctrl + V চেপে কপি করা কোডটি পেস্ট করুন।

৭. তারপর Save Changes এ ক্লিক করুন।

৮. এবার আবার কোড দেয়ার পেজটি তে ফিরে গিয়ে Return to the Site List এ ক্লিক করুন।

উপরের কাজ গুলো করার সময় বর্ণনার সাথে বাস্তবের কিছুটা পরিবর্তন হতে পারে। আশা করি কোন সমস্যা হবে না। আর কোন সমস্যা হলে আমি তো আছিই। ভাল লাগলে বা কোন সমস্যা হলে কমেন্ট করবেন।

ডেস্কটপ থেকে জানুন আপনার আপনার ই-মেইল এসেছে কিনা

আমদের মধ্যে যারা বেশী ব্যস্ত থাকে তারা সব সময় মেইল চেক করতে পারেনা। তাদের জন্য একটি ছোট, ফ্রি এবং সুন্দর সফটওয়্যার হচ্ছে Meebo Notifier. এর সাইজ মাত্র ১.৫ মেগাবাইট। এটি ইয়াহু, জিমেইল, হটমেইল এবং এআইএম এ্যাকাউন্ট সাপোর্ট করে। এটি চালু রাখলে নতুন মেসেজ এলে আপনাকে অবহিত করবে। এটি একবারে কম ব্যান্ডউইথ ব্যবহার করে। এটি সয়ংক্রিয় উইন্ডোজ স্টার্ট এর সময় চালু এবং লগঅন করতে পারে। তাই আপনাকে লগঅন করে দিতে হবে না। এছাড়া আপনার ইমেইল ক্লায়েন্টের ইনস্ট্যান্ট ম্যাসেজের কোন ব্যবস্থা থাকলে কেউ অনলাইনে আসলে বা কোন ইনস্ট্যান্ট মেসেজ পাঠালেও এটি আপনাকে অবহিত করবে। এটি ব্যবহার একদম সহজ। প্রথমে এখান থেকে Meebo Notifier ডাউনলোড করুন। এর পর একে ইনস্টল করে চালু করুন। তাহলে নিচের মত উইন্ডো আসবে।

এখানে Network বাক্স থেকে আপনার ইমেইল ক্লায়েন্ট সিলেক্ট করুন। এবার Login বক্সে ব্যবহারকারীর নাম এবং Password বক্সে পাসওয়ার্ড লিখে Login বাটনে ক্লিক করুন। কাজ শেষ। এবার আপনার নেট চালু থাকলে সয়ংক্রিয় এটি আপনার মেইল চেক করবে। নেট বন্ধ থাকলে এটি বন্ধ থাকবে এবং চালু হলে আবার সয়ংক্রিয় চালু হবে। আপনি চাইলে পরেও আপনার মেইল পরিবর্তন করতে পারেন। এর জন্য প্রথমে সিস্টেম ট্রে থেকে Meebo চিহ্নটির উপর মাউস পয়েন্টার নিয়ে রাইট ক্লিক করুন।

চিত্রের ১ চিহ্নিত আইকনটি নতুন মেইল আসলে দেখাবে। এতে ডাবল ক্লিক করলে আপনার ডিফল্ট ব্রাউজারে নতুন মেইলটি ওপেন হবে। Meebo আইকনে রাইট ক্লিক করে Account Settings… এ ক্লিক করুন। তাহলে নিচের উইন্ডোটি আসবে।

এখানে Network থেকে আপনার ইমেইল ক্লায়েন্ট সিলেক্ট করে Login বক্সে ব্যবহার কারীর নাম এবং Password বক্সে পাসওয়ার্ড লিখে OK বাটনে ক্লিক করুন। আশা করি সফটওয়্যারটি কাজে লাগবে।

ফায়ারফক্সের জন্য প্রয়োজনীয় কিছু অ্যাড-অনস – ০২

ফায়ারফক্সের কিছু প্রয়োজনীয় অ্যাড-অনের বর্ণনা নিচে দিলাম। দেখুন কাজে লাগে কিনা।

ইয়াহু! মেইল ওয়াচার (Yahoo! Mail Watcher) – এটি একটি প্রয়োজনীয় অ্যাড-অন। এ অ্যাড-অনটি চালু রাখলে নির্দিষ্ট সময় পরপর আপনার ইয়াহু মেইল চেক করবে এবং নতুন মেইল এলে আপনাকে জানাবে। ফলে আপনাকে কষ্ট করে ইয়াহুতে ঢুকে মেইল চেক করতে হবে না। এটি দিয়ে সয়ংক্রিয় মেইল চেক করতে অবশ্যই আপনার ইয়াহু মেইলে লগঅন থাকতে হবে। এটি এখান থেকে যোগ করতে পারবেন।

কালারফুল ট্যাবস (Colorful tabs) – এটি প্রয়োজনীয় অ্যাড-অন না। এটি আপনার ফায়ারফক্সের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য ব্যবহার করতে পারেন। এটি চালু রাখলে আপনার ট্যাব গুলো একেকটা একেক রং হয়ে যাবে। আপনি নিজেও ট্যাব এর রং নির্দিষ্ট করে দিতে পারবেন। এটি এখান থেকে যোগ করতে পারবেন।

ইমেজ ব্লক (Image block) – ওয়েব পেজে সবচেয়ে বেশী নেট খরচ হয় ইমেজ লোড হতে। আপনি চাইল এ অ্যাড-অনটি দিয়ে ইমেজ লোড ব্লক করতে পারবেন। এ অ্যাড-অনটি এখান থেকে যোগ করতে পারেন।

কী স্ক্র্যাম্বলার (Key Scrambler) – হ্যাকাররা বিভিন্ন সফটওয়্যারের মাধ্যমে আপনার পাসওয়ার্ড হ্যাক করার চেষ্টা করে। অনেক সময় হ্যাকাররা আপনার কম্পিউটারে আক্রমন করে বিভিন্ন সফটওয়্যারের মাধ্যমে আপনি কী-বোর্ডের কোন কি চাপেন তা তার কম্পিউটার থেকে দেখতে পারেন। আপনি “কী স্ক্র্যাম্বলার” অ্যাড-অনটি ব্যবহার করে হ্যাকার থেকে আপনার পাসওয়ার্ড রক্ষা করতে পারেন। এটি চালু রাখলে আপনি কোন কী চাপলে হ্যাকার তা না দেখে অন্য একটি কী দেখতে পাবে। এ অ্যাড-অনটি এখান থেকে যোগ করতে পারবেন।

স্ক্রাইব ফায়ার (ScribeFire) – এটি একটি সুন্দর এবং প্রয়োজনীয় অড-অন। আমরা বিভিন্ন ব্লগের পোষ্ট পড়ার সময় কোন পোষ্ট ভাল লাগলে তা নিজের ব্লগে দেই। এসময় এ অ্যাড-অনটি আপনাকে সাহায্য করতে পারবে। এটি দিয়ে ঐ ব্লগে থাকা অবস্থায় আপনি ঐ পোস্টটি আপনার ব্লগে পোষ্ট করতে পারবেন। এটি এখান থেকে ডাউনলোড করতে পারেন। কোন পোষ্ট আপনার ব্লগে প্রকাশ করতে ঐ পেজের উপর রাইট ক্লিক করে ScribeFire থেকে blog this page এ ক্লিক করুন। তারপর আপনার ব্লগের নাম এবং পাসওয়ার্ড দিতে হবে। তারপর নতুন যে উইন্ডোটি আসবে সেখানে পোস্টটি কপি-পেস্ট করে দিন এবং প্রয়োজনীয় লেখা লিখে Publish to “আপনার ব্লগের নাম” এ ক্লিক করুন। এটি ব্লগার, ওয়ার্ডপ্রেস সহ আরও কিছু জনপ্রিয় ব্লগ সাইট সাপোর্ট করে।

আশা করি অ্যাড-অন গুলো কাজে লাগবে। কোন সমস্যা হলে কমেন্ট করবেন।